Bathroom Decor|| দিনের শেষে শান্তি দেবে সাজানো গোছানো বাথরুম, থাকল স্নানঘর মেকওভারের ৫ টিপস

Bathroom Decor|| দিনের শেষে শান্তি দেবে সাজানো গোছানো বাথরুম, থাকল স্নানঘর মেকওভারের ৫ টিপস


#কলকাতা: নতুন বাড়ি বা ফ্ল্যাট সাজানো হয়েছে সুন্দর করে। কিন্তু যে ঘরটাতে প্রতি দিন একান্তে সময় কাটাতে হয়, তার দিকে নজর দেওয়াই হয় না। বাড়িতে কেউ এলে, তখন আলাদা করে মনে পড়ে বাথরুমের কথা। বাড়ির এই গুরুত্বপূর্ণ অংশেরও প্রয়োজন সঠিক সাজ।

আসলে বাড়ির ডাইনিং, ড্রয়িং, বেডরুম, কিচেনের মতো বাথরুমেরও তো একটা নিজস্ব চরিত্র রয়েছে। ফলে বাথরুমের রঙ, টাইলস এবং বেসিনের ধরনেও রুচির পরিচয় পাওয়া যায়। আর সারাদিনের অফিস, সংসারের কাজ সেরে স্নানে ঢুকে বাথরুমে যদি মনোরম পরিবেশ না মেলে তখন আর যাই হোক মানসিক ক্লান্তি দূর হয় না। আর কে না জানে স্নিগ্ধকর, মনোমুগ্ধকর পরিবেশ হলে আরাম আরও দ্বিগুণ হয়ে যায়! তবে এ জন্য গ্যাঁটের কড়ি খরচের দরকার নেই। ছোটখাটো কয়েকটি জিনিসই বদলে দিতে পারে বাথরুমের চেহারা।

আরও পড়ুন: সামাজিক ‘এই’ কার্যকলাপ থেকেই বাড়ে করোনা সংক্রমণের সম্ভাবনা! সমীক্ষায় ওঠে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য!

বাথটাবঃ

বাথরুম ততটাও বড় নয়৷ কিন্তু স্নানবিলাসী৷ নো টেনশন! কর্নার বাথটাব রয়েছে কীসের জন্য? স্নানঘর যেমনই হোক, দিব্যি খাপে খাপ এঁটে যাবে৷ বাথরুমের এক কোণে থাকবে। দেখতে ছিমছাম৷ আকারে ছোটো৷ কিন্তু আরামে দড়। নানা রঙের হয়৷ তবে হালকা নীলাভ হলে সমুদ্রের গন্ধ পাওয়া যাবে ঘরে বসেই। আর বেশ গভীরও৷ অনেকটাই জল ধরে৷ এবং জল নিয়ে হুল্লোড়ে মাততে চাইলে একাধিক ব্যক্তিও নেমে পড়তে পারেন এই টাবে৷

বাথরুম সামগ্রীঃ

বাথরুমে যে ধরনের সামগ্রী ব্যবহার করা হয়, যেমন সাবান রাখার জায়গা, তেলের শিশি, তোয়ালে ইত্যাদি এক রঙের হলে দেখতে ভাল লাগবে। একদম এক না হলে অন্তত সেই রঙের হালকা শেড-ও ব্যবহার করা যায়। এতে পুরো বাথরুমটার চেহারায় একটা মিল আসবে।

আরও পড়ুন: করোনাভাইরাস-ওমিক্রন আতঙ্ক! সুস্থ হতে আক্রান্তেরা কী খাবেন এবং কেন? জানুন…

ম্যাট যেন হয় রুচিসম্মতঃ

বাথরুমের অন্দরসজ্জার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সামগ্রী হল ম্যাট। শুধু সৌন্দর্য বাড়ায় না, কার্যকরীও বটে। স্নানের পর পা ভেজা থাকলে গোটা বাড়িতেই সেই দাগ পড়তে পড়তে যাবে। সে জন্যই ম্যাট। তাছাড়া মেঝেতে বিছানো সুন্দর ম্যাট বাথরুমের গ্ল্যামারও বাড়িয়ে দেবে বহুগুণ।

টাইলসঃ

আধুনিক বাথরুমসজ্জার অবিচ্ছেদ্য অংশ টাইলস। পোর্সেলিন, গ্লাস, সিমেন্ট, মোজাইক, লাইমস্টোন- অপশনও অনেক। এখন মার্বেল ফিনিশড টাইলসের চাহিদা বেশি। নামী ব্র্যান্ডের ডিজ়াইনার টাইলসও লাগানো যায়। তবে বাথরুমের ফ্লোরে বেশি চকচকে টাইলস না লাগানোই বাঞ্ছনীয়। কারণ তাতে জল পড়লে অসম্ভব স্লিপারি হয়ে যেতে পারে। সে ক্ষেত্রে একটু দাম দিয়ে ম্যাট ফিনিশ টাইলস বেছে নেওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ।

নিউজ১৮ বাংলায় সবার আগে পড়ুন ব্রেকিং নিউজ। থাকছে দৈনিক টাটকা খবর, খবরের লাইভ আপডেট। সবচেয়ে ভরসাযোগ্য বাংলা খবর পড়ুন নিউজ১৮ বাংলার ওয়েবসাইটে।



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: